alo
ঢাকা, সোমবার, অক্টোবর ৩, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৮ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শোক দিবস উপলক্ষে যুবলীগ নেতার ব্যতিক্রমী উদ্যোগ

প্রকাশিত: ২৮ আগস্ট, ২০২২, ১২:২১ পিএম

শোক দিবস উপলক্ষে যুবলীগ নেতার ব্যতিক্রমী উদ্যোগ
alo

 

চট্টগ্রাম ব্যুরো: জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে 'বঙ্গবন্ধুর গল্প শোন' শীর্ষক আলোচনা সভা ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা আয়োজন করেছেন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি পদপ্রার্থী রাজিবুল আহসান সুমন। 

শনিবার (২৭ আগষ্ট) বিকাল ৩ টায় চট্টগ্রাম শিশু একাডেমি মিলনায়তনে চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও জেলা যুবলীগের সভাপতি প্রার্থী রাজিবুল আহসান সুমন এর আয়োজনে ও সভাপতিত্বে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের নিয়ে এই অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। 

এতে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট সমাজ বিজ্ঞানী, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী, বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, চট্টগ্রাম জেলা ইউনিট কমান্ডের ভারপ্রাপ্ত কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা এ কে এম সারোয়ার কামাল, চট্টগ্রাম মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ পরিচালক ডা. বিদ্যুৎ বড়ুয়া, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজতত্ব বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সদস্য জনাব শোয়াইব উদ্দিন হায়দার।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন সন্দ্বীপ উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি, আওয়ামী লীগ নেতা মোশাররফ হোসেন লিটন, জেলা যুবলীগ নেতা শাহজামান আরজু, মোসলেম উদ্দিন মুন্না, ছাত্রলীগ নেতা  মোহাম্মদ ইয়াকুব, ইউসুফ আলি বিপ্লব প্রমুখ। 

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি কে সম্মাননা স্মারক প্রদান করেন যুবলীগ নেতা মাকছুদের রহমান পারভেজ, বিশেষ অতিথিগন কে সম্মাননা স্মারক প্রদান করেন রেজাউল করিম ফাহাদ, মাহবুব সুমন, রাকিবুল ইসলাম রকি প্রমুখ।

চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহনকারী বিভিন্ন বিভাগে ৩৫০ জন প্রতিযোগীর মধ্যে থেকে ২৫ জনকে সনদ ও ক্রেষ্ট প্রদান করা হয়। প্রতিযোগিতায় ক বিভাগে আল হিনা আহমেদ, খ বিভাগে অর্ঘজিৎ দত্ত,গ বিভগে আইরিন আকতার প্রথম স্থান লাভ করেন। চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকারু বিভাগের অধ্যাপক মাসুদ রুবি ও সহযোগী অধ্যাপক উত্তম কুমার বড়ুয়া।

প্রধান অতিথি প্রফেসর ড.  ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান যখন ছোট ছিলেন  সেই শিশু বয়সে মানুষের কল্যানে কাজ করতেন। গরীবদের সাহায্য করতেন। বঙ্গবন্ধুর নাম ছিল খোকা। 'খোকা' শিশু বয়স থেকে বন্ধুদের বিপদে পাশে থেকে, অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করে, বাংলার মানুষের অধিকার আদায়ের সংগ্রাম করে, ধারাবাহিক আন্দোলন কর্মসূচি ও ৬ দফা দিয়ে বাংলার মানুষের হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছিলেন। স্বাধীনতার ঘোষনা দিয়ে, স্বাধীন বাংলাদেশ সৃষ্টি করে বঙ্গবন্ধু জাতির জনক হয়েছেন।

নিউজনাউ/পিপিএন/২০২২

 

X