alo
ঢাকা, রবিবার, অক্টোবর ২, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৭ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বিএনপির বিরুদ্ধে নিহত শাওনের পরিবারের মামলা

প্রকাশিত: ০২ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ০৩:১২ পিএম

বিএনপির বিরুদ্ধে নিহত শাওনের পরিবারের মামলা
alo


নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি: বৃহস্পতিবার (১ সেপ্টেম্বর) নারায়ণগঞ্জে পুলিশ-বিএনপি সংঘর্ষে শাওন প্রধান নামে এক যুবকের মৃত্যুর ঘটনায় বিএনপি এবং তার সহযোগী সংগঠনের বিরুদ্ধেই নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় মামলা করেছেন নিহতের বড় ভাই মিলন হোসেন। পাঁচ হাজার জনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে মামলায়।

অভিযোগ পত্রে বলা হয়, শাওনের মৃত্যু হয়েছে অবৈধ অস্ত্রের আঘাতে। আর এর জন্য দায়ী করা হয় বিএনপির নেতা-কর্মীদের। বলা হয়, তারা যখন অবৈধ অস্ত্র নিয়ে পুলিশের ওপর আক্রমণ করছিল, তখন শাওন মাটিতে লুটিয়ে পড়েন।

শাওন প্রধান ফতুল্লার নবীনগর বাজারে ওয়ার্কশপ মিস্ত্রি হিসেবে কাজ করতেন। স্বজনরা জানান, বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে তিনি ওয়ার্কশপের মালামাল কিনতে বাসা থেকে বের হন।

নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. সাইদুজ্জামান এজাহারের বরাত দিয়ে বলেন, মামলায় বলা হয়েছে, ১০টার দিকে বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের আনুমানিক পাঁচ হাজার নেতা-কর্মী ইটপাটকেল, লোহার রড, হকিস্টিকসহ অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে দফায় দফায় মিছিল করে পুলিশের ওপর ইটপাটকেল ও ককটেল বিস্ফোরণ ঘটাতে থাকে।

‘বেলা পৌনে ১১টার দিকে ২ নম্বর রেলগেট এলাকা দিয়ে শাওন প্রধান যাওয়ার সময় বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মীরা পুলিশের ওপর আক্রমণ করতে থাকেন। এ সময় অবৈধ অস্ত্রের গুলি ও ইটের আঘাতে শাওন মাথা ও বুকে গুরুতর আঘাত পেয়ে রাস্তায় পড়ে যান।

‘তাৎক্ষণিকভাবে রাস্তার লোকজন গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ ভিক্টোরিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক শাওনকে মৃত ঘোষণা করেন।’

বিএনপি এবং সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে শাওনের ভাইয়ের মামলা করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনিচুর রহমান মোল্লা।

তিনি বলেন, ‘বিএনপির নেতা-কর্মীরা পুলিশের ওপর হামলার জেরে শাওন নিহত হন, এমন অভিযাগ করে শাওনের বড় ভাই হত্যা মামলা করেছেন।’

ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

নিউজনাউ/আরবি/২০২২
 

X