alo
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

স্বামীকে শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগে স্ত্রী গ্রেপ্তার, পুলিশকে জানিয়েছে মেয়ে

প্রকাশিত: ১৬ নভেম্বর, ২০২২, ১১:০৪ পিএম

স্বামীকে শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগে স্ত্রী গ্রেপ্তার, পুলিশকে জানিয়েছে মেয়ে
alo

 

চট্টগ্রাম ব্যুরো: চট্টগ্রাম নগরে বাকলিয়া এলাকায় পারিবারিক কলহের জেরে স্বামীকে শ্বাসরোধ করে খুনের অভিযোগে স্ত্রীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। স্ত্রী প্রথমে খুনের বিষয়ে স্বীকার না করলেও তার ছয় বছর বয়সী শিশু কন্যা পুলিশকে জানায় জানায় তার মা তার বাবাকে বুকের উপর বসে গলাটিপে হত্যা করেছে।

গ্রেপ্তার লিজা আক্তারের (২৩) স্বামীর নাম আব্দুর শুক্কুর ওরফে সোহেল। দুই সন্তান নিয়ে বাকলিয়ার হাটখোলায় একটি বাসায় তারা ভাড়া থাকতেন।

সোহেলের বাবার করা মামলায় মঙ্গলবার (১৫ নভেম্বর) রাতে ওই নারীকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে বাকলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রহিম জানান। 

তিনি বলেন, ‘গতকাল মঙ্গলবার আমাদের কাছে প্রথমে অভিযোগ আসে এক ব্যক্তি স্ট্রোক করে হাসপাতালে মারা গেছেন। পরবর্তী সেখানে অফিসার পাঠালে ওই লোকের শরীরে আঘাতের চিহ্ন দেখতে পান। ওই সময়ে আমরা তার স্ত্রীকে গ্রেপ্তার করি। পরে গ্রেপ্তারের পর স্বীকার করেছে তার স্বামীর বুকের উপর হাটুর চাপ দিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়। এছাড়াও সেই দম্পতির ৬ বছরের মেয়ে মুহতাহিনা জান্নাত মিমও হত্যার রহস্য উন্মোচন করতে সহযোগিতা করেছে।’

নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) নোবেল চাকমা জানান, সুরতহালে সোহেলের গলায় ও বুকে কালো দাগ দেখা গেছে। মঙ্গলবার লাশের ময়নাতদন্তও হয়েছে। প্রতিবেদন পেলে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে।

মামলার এজাহারে বলা হয়, ২০১৫ সালে বিয়ে হয় সোহেল ও লিজার। বিয়ের পর থেকেই পারিবারিক বিভিন্ন বিষয়ে দুজনের ঝগড়া হত। লিজার ‘চাপে’ দুবছর আগে হাটখোলায় আলাদা বাসা নিয়ে থাকতে শুরু করেন তারা।

'১৪ নভেম্বর রাত ৯টার দিকে লিজা ফোন করে সোহেলের ছোট ভাই আব্বাসকে সোহেলের অসুস্থতার খবর দেয়। খবর পেয়ে আব্বাস বাসায় গিয়ে দেখতে পান লিজা তার মা, মামাসহ আরও দু্জন মিলে সোহেলকে হাসপাতালে নিয়ে যাচ্ছেন।'

পরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গিয়ে সোহেলকে মৃত অবস্থায় পান বলে এজাহারে জানিয়েছেন তার বাবা।

নিউজনাউ/পিপিএন/২০২২

X