alo
ঢাকা, শুক্রবার, ফেব্রুয়ারী ৩, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ | ২১ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

হাজারী গলিতে ৪০ লাখ টাকার অবৈধ ওষুধ, তালা ভেঙে ঢুকলো ম্যাজিস্ট্রেট

প্রকাশিত: ১৮ জানুয়ারী, ২০২৩, ১১:৫১ এএম

হাজারী গলিতে ৪০ লাখ টাকার অবৈধ ওষুধ, তালা ভেঙে ঢুকলো ম্যাজিস্ট্রেট
alo

 

চট্টগ্রাম ব্যুরো: চট্টগ্রামের সর্ববৃহৎ ওষুধের মার্কেট কোতোয়ালি থানা এলাকার হাজারী লেইন। সেখানে অভিযানে যান জেলা প্রশাসনের দুইজন ম্যাজিস্ট্রেট। সেখানকার ছবিলা কমপ্লেক্সে ঢুকতে গেলে ঘটে বিপত্তি। সকল ফার্মেসী বন্ধ করে মালিকরা অবস্থান নেন মার্কেটের বাইরে। মালিক সমিতি ও নেতৃবৃন্দের অনুরোধ করেও হয়নি সুরাহা। শেষমেশ নিতে হয় পুলিশের সাহায্য৷ তৃতীয় ও চতুর্থ তলার গোডাউন ভেঙে দেখা যায় সর্ববৃহৎ এই ওষুধের মার্কেটেই ছিল ৪০ লক্ষ টাকার আনরেজিস্টার্ড ওষুধ।

মঙ্গলবার (১৭ জানুয়ারি) বিকেল ৩টার দিকে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী  ম্যাজিস্ট্রেট প্রতীক দত্ত ও আব্দুল্লাহ আল মামুন এ অভিযান পরিচালনা করেন। 

এসময় আনরেজিস্টার্ড ওষুধগুলো জব্দ করে নষ্ট করা হয় এবং ফিজিশিয়ানস স্যাম্পলগুলো চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এর আগে অভিযান শুরুর দিকে ৩টি ফার্মেসীতে ফিজিশিয়ানস স্যাম্পল রাখায় সর্বমোট ৮০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। ফার্মেসীগুলো হলো—সততা ফার্মেসি, নিয়ামত শাহ ফার্মেসি ও ক্যাল ফার্মা।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট প্রতীক দত্ত বলেন,  আজ চট্টগ্রামের সর্ববৃহৎ ওষুধের মার্কেট হাজারী লেনে অভিযান চালানো হয়। অভিযান শুরুর দিকে ৩টি ফার্মেসীতে ফিজিশিয়ানস স্যাম্পল রাখায় সর্বমোট ৮০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। কিন্তু এরপর হাজারী লেনের ছবিলা কমপ্লেক্সে ঢুকতে গেলে দেখা দেয় বিপত্তি। সকল ফার্মেসী গুলো বন্ধ করে মালিকেরা মার্কেটের বাইরে অবস্থান নেয়। মার্কেট কমিটি, ফার্মেসি মালিক সমিতি ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দের অনেক অনুরোধ সত্ত্বেও দোকান খুলতে অস্বীকৃতি জানান মালিকেরা। 

তিনি বলেন, এরপর কোতোয়ালি থানা থেকে ১২ সদস্যবিশিষ্ট সিএমপি’র আরেকটি দল অভিযানে যোগ দেয়। তখন ছবিলা কমপ্লেক্সের তৃতীয় তলার একটি এবং চতুর্থ তলার একটি গোডাউনের তালা ভাঙার সিদ্ধান্ত নিই। তালা ভেঙে দুই গোডাউন থেকে প্রায় ৪০ লক্ষ টাকার আনরেজিস্টার্ড ওষুধ পাই।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ কেমিস্ট এন্ড ড্রাগিস্ট এসোসিয়েশন, চট্টগ্রাম  এর সহ সভাপতি জনাব আশীষ ভট্টাচার্য বলেন, ‘দুই একজন অসাধু ব্যবসায়ীর কারণে আমাদের হাজারী গলির সবার বদনাম হয়। প্রশাসনের এরূপ অভিযানে আমরা সর্বাত্মক সহযোগিতা করেছি এবং ভবিষ্যতেও করব।’

অভিযানেওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তর চট্টগ্রাম এর সহকারী পরিচালক জনাব শাখাওয়াত হোসেন আকন্দ রাজু জেলা প্রশাসনকে সার্বিক সহযোগিতা করেন। 

নিউজনাউ/আরএইচ/২০২৩

X