alo
ঢাকা, শুক্রবার, ফেব্রুয়ারী ৩, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ | ২১ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

গ্রন্থমেলায় ‘বিতর্কিত’ বই না রাখার আহ্বান বাংলা একাডেমির

প্রকাশিত: ২৩ জানুয়ারী, ২০২৩, ১১:১৬ এএম

গ্রন্থমেলায় ‘বিতর্কিত’ বই না রাখার আহ্বান বাংলা একাডেমির
alo


নিউজনাউ ডেস্ক: বইমেলা-২০২৩ শুরু হতে আর মাত্র কয়েকদিন বাকী। এরইমধ্যে সোমবার (২৩ জানুয়ারি) থেকে মেলার স্টল-প্যাভিলিয়নের মূল কাজ শুরু করতে ৪২৬টি প্রতিষ্ঠানের প্রকাশকদের ৭২৫টি স্টল ও প্যাভিলিয়ন বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে লটারির মাধ্যমে। এরমধ্যে প্যাভিলিয়ন ৩৪টি আর স্টল ৬৯১টি। 

রবিবার (২২ জানুয়ারি) বিকালে বাংলা একাডেমির আবদুল করিম সাহিত্য বিশারদ মিলনায়তনে ডিজিটাল লটারির মাধ্যমে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বইমেলার মূল চত্বরে এসব স্টল ও প্যাভিলিয়নের বরাদ্দ দেওয়া হয়। এসময় ‘নেতিবাচক’ বা ‘বিতর্কিত’ কনটেন্ট রয়েছে এমন বই মেলায় না তুলতে প্রকাশকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে বাংলা একাডেমি কর্তৃপক্ষ।

লটারি শুরুর আগে বাংলা একাডেমির সচিব আবুল হাসান মো. লোকমান বলেন, এবারে বইমেলায় যার স্টল যেখানেই পড়ুক না কেন, কোনও স্টল খারাপ না। সেভাবেই এবার মেলার স্টলগুলো সাজানো হয়েছে। বইমেলা এত বড় একটি কর্মযজ্ঞ, সারা দেশ এদিকে তাকিয়ে থাকে। কিছু দিন আগে লিট ফেস্ট হয়েছিল আমরা দেখেছি। সেখানে মানুষের উপচে পড়া ভিড়। সেখানে নতুন নতুন মানুষ আসে নতুন নতুন স্টল নেওয়ার জন্য। মানুষের কিন্তু বইমেলা স্টল নিয়ে আগ্রহের কমতি নেই। এবার বইমেলায় অনেক মানুষের সমাগম হবে এটা আমার বিশ্বাস। আমাদের বইমেলার যে নিয়ম-নীতিগুলো আছে সেগুলোর প্রতি যদি আমরা সবাই শ্রদ্ধাশীল হই, তাহলে কোনও অসুবিধা হবে না।

আবুল হাসান মো. লোকমান আরও বলেন, আজও কিছুক্ষণ আগে দুটি স্টলের বই সম্পর্কে আমার কাছে অভিযোগ এসেছে। এটা আমার কাছে মেইল করে পাঠিয়েছে। তবে আমি সেগুলোর নাম উল্লেখ করছি না। বিশেষ বিশেষ বইয়ে কিছু কনটেন্ট আছে, খুবই নেতিবাচক কনটেন্ট। যদি কারও থাকে, আমি বিনীতভাবে অনুরোধ করছি, তারা বইগুলো এবার স্টলে উঠাবেন না। বিতর্কিত করে এমন কোনও বই। সহজ কথা হচ্ছে আমরা শুদ্ধাচারী জাতি, বাঙালি জাতি। আমরা চাই একটি সুন্দর-সুখময় শান্তির স্বদেশ। আমরা চাই দূষণমুক্ত, মাদকমুক্ত, বাল্যবিবাহমুক্ত, জঙ্গিমুক্ত, সন্ত্রাসমুক্ত, মিথ্যামুক্ত এবং অন্যায় অপরাধমুক্ত বাংলাদেশ।

নিউজনাউ/আরবি/২০২৩

X