alo
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
logo

স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যার পর স্বামীর বিষপান


Sejuti Khan   প্রকাশিত:  ০১ ডিসেম্বর, ২০২২, ০৫:৩৬ এএম

স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যার পর স্বামীর বিষপান

নিউজনাউ ডেস্ক: শেরপুরের সদরে স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যার পর বিষপান করে স্বামীর আত্মহত্যার চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় পুলিশের হেফাজতে অভিযুক্তকে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

উপজেলার ভাতশালা ইউনিয়নের বয়রা পরানপুর গ্রামে সোমবার সকালে এ ঘটনা ঘটে।

শেরপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোহাম্মদ হান্নান মিয়া নিউজবাংলাকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নিহত ৩২ বছরের পারভীন বেগম ভাতশালা ইউনিয়নের বয়রা পরানপুর গ্রামের সোহরাব আলীর মেয়ে। স্বামী ৩৮ বছরের মো. শফিকুল ইসলাম একই ইউনিয়নের হাওড়া গ্রামের মন মিয়ার ছেলে।

নিহতের পরিবারের বরাতে পুলিশ জানায়, পারভীন ও শফিকুলের বিয়ে হয় ১০ বছর আগে। তাদের ৮ বছরের এক মেয়ে ও ৬ বছরের এক ছেলে রয়েছে। পারিবারিক কলহের জেরে দুই মাস আগে শফিকুলের বাড়ি থেকে বাবার বাড়িতে চলে যান পারভীন। সেখানে পৌরসভার নাগপাড়ায় আল বারাকা নামে একটি প্রাইভেট হাসপাতালে আয়ার চাকরি নেন।

রোববার রাতে শ্বশুর বাড়িতে যান শফিকুল। রাতের খেয়ে সবাই শুয়ে পড়েন। রাতে কোনো এক সময় ধারালো অস্ত্র দিয়ে পারভীনের গলা কেটে হত্যা করেন শফিকুল। পরে নিজেও বিষয় পান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন।

পারভীনের মা জামেলা বেগম গণমাধ্যমকে বলেন, সোমবার সকালে তার মেয়ে পারভীন এবং জামাই শফিকুলের কোনো সাড়াশব্দ না পেয়ে ঘরে উঁকি দিয়ে দেখতে পান পারভীন রক্তাক্ত অবস্থায় মেঝেতে পড়ে আছে এবং শফিকুলের মুখ দিয়ে ফেনা বের হচ্ছে।

চিৎকার দিলে বাড়ির লোকজন এসে পুলিশে খবর দেয়। ৯টার দিকে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য শেরপুর জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হান্নান মিয়া গণমাধ্যমকে বলেন, ‘সুরতহাল শেষে মরদেহ মর্গে পাঠানো হয়েছে। শফিকুলকে শেরপুর জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আমাদের প্রাথমিক ধারণা, শফিকুল তার স্ত্রীকে ধারালো কিছু দিয়ে গলা কেটে হত্যা করেছেন। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।’


নিউজনাউ/এসকে/২০২২

X