alo
ঢাকা, মঙ্গলবার, নভেম্বর ২৯, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

পাইকারি পর্যায়ে বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধি জনজীবনে দুর্ভোগ আরও বাড়াবে: বাসদ

প্রকাশিত: ২১ নভেম্বর, ২০২২, ০৮:১১ পিএম

পাইকারি পর্যায়ে বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধি জনজীবনে দুর্ভোগ আরও বাড়াবে: বাসদ
alo

 

নিউজনাউ ডেস্ক: পাইকারি পর্যায়ে বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি জনজীবনে দুর্ভোগ আরও বাড়াবে মন্তব্য করে অবিলম্বে বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের জানিয়েছে বাংলাদেশে সমাজতান্ত্রিক দল -বাসদ।

সোমবার (২১ নভেম্বর) বাসদ এর কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক কমরেড বজলুর রশীদ ফিরোজ  সংবাদপত্রে দেয়া এক বিবৃতিতে এ দাবি জানান।

বিবৃতিতে বলা হয়, পাইকারি পর্যায়ে বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির ঘোষণা জনদুর্ভোগ আরও বাড়াবে। এটা ভোক্তা পর্যায়েও বাড়বে। সরকার দাম বৃদ্ধির পক্ষে যুক্তি দেবে বিদ্যুতে প্রচুর ভর্তুকি দিচ্ছে সরকার, এত ভর্তুকি সরকারের পক্ষে দেয়া সম্ভব না। তাছাড়া আইএমএফও বলেছে ঋণ পেতে হলে এসব ভর্তুকি প্রত্যাহার করতে। কিন্তু বিদ্যুৎখাতের বড় ভর্তুকি দেয়া হচ্ছে বেসরকারী কিছু বিদ্যুৎকেন্দ্রকে বসিয়ে বসিয়ে ক্যাপাসিটি চার্জ বাবদ। যে কেন্দ্রগুলোর দরকারই ছিল না এবং যেগুলোর সময় বাড়ানোরও দরকার ছিল না। রেন্টাল কুইক রেন্টাল বিদ্যুৎ কেন্দ্রগুলো কোন উৎপাদন না করলেও বসিয়ে রেখে ১১ বছরে তাদেরকে প্রায় ৬০ হাজার কোটি টাকা দিতে হয়েছে।

এতে আরও বলা হয়, বর্তমানে বিদ্যুৎ কোম্পানিগুলো মুনাফা করছে। আমরা বিদ্যুৎ পাচ্ছি না অথচ তাদের মুনাফা হচ্ছে। কারণ দাম বাড়িয়ে জনগণের পকেট কেটে তাদের টাকা দেওয়া হচ্ছে। সরকারের কাজই হলো জনগণকে বিদ্যুৎ না দিয়ে একটি গোষ্ঠীকে মুনাফা লুটতে দেয়া। ফলে ভুক্তভোগী শেষ পর্যন্ত জনগণই।

বিবৃতিতে কমরেড ফিরোজ বলেন, বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর পরিণতিতে আবারও দেশে সব জিনিসপত্রের দাম আরেক দফা বাড়বে। তিনি বলেন, পাইকারিতে দাম বাড়লে গ্রাহক পর্যায়েও সেটার প্রভাব অবশ্যই পড়তে বাধ্য।

কমরেড ফিরোজ বলেন, এমনিতেই দ্রব্যমূল্যের উর্ধগতিতে জনজীবন দিশেহারা, তার উপর বিদ্যুতের এই মূল্যবৃদ্ধি জনদুর্ভোগ আরও বড়াবে। তিনি অবিলম্বে পাইকারী পর্যায়ে বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করার দাবি জানান। একই সাথে বিদ্যুতের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে দেশবাসীকে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন  গড়ে তোলার আহ্বান জানান।

নিউজনাউ/এসএইচ/২০২২।

X