alo
ঢাকা, সোমবার, ডিসেম্বর ৫, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ডেপুটি স্পিকারের আসনে কে হচ্ছেন নৌকার মাঝি?

প্রকাশিত: ০৭ আগস্ট, ২০২২, ০২:৫৩ পিএম

ডেপুটি স্পিকারের আসনে কে হচ্ছেন নৌকার মাঝি?
alo

 


নিউজনাউ ডেস্ক: জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়ার মৃত্যুর শোক কাটতে না কাটতেই ওই আসনে (গাইবান্ধা-৫ ফুলছড়ি-সাঘাটা সংসদীয় আসন) জমে উঠেছে নির্বাচনী প্রচারণা। কে হবেন নৌকার মাঝি, তা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক এখন সরগরম। পাশাপাশি স্থানীয় হাট-বাজার ও মোড়ের চায়ের স্টল থেকে শুরু করে সর্বত্র চলছে এই জল্পনা-কল্পনা। 

ইতোমধ্যে আসনটি শূন্য ঘোষণা করে প্রজ্ঞাপনও জারি করে বাংলাদেশ সংসদ সচিবালয়। সাংবিধানিক নিয়ম অনুযায়ী আগামী ৯০ দিনের মধ্যে উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আসনটিতে। সম্ভাব্য প্রার্থীরাও দলীয় মনোনয়ন পেতে দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছেন ওপর মহলে। দলীয় ও স্থানীয় সমর্থন পেতে তারা ছুটছেন নেতাকর্মীদের মাঝে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, চায়ের দোকানে চালাচ্ছেন প্রচার প্রচারণা। সবখানে একই আলোচনা কে হচ্ছেন ফজলে রাব্বী মিয়ার উত্তরসূরী।

স্থানীয় দলীয় নেতাকর্মী ও আওয়ামী লীগ নেতাদের সূত্রে জানা যায়, উপনির্বাচনে গাইবান্ধা-৫ (ফুলছড়ি-সাঘাটা) আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী হলেন চারজন। তারা হলেন সদ্য প্রয়াত ফজলে রাব্বী মিয়ার মেয়ে ফারজানা রাব্বী বুবলী, ফুলছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জি. এম সেলিম পারভেজ, ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সভাপতি মাহমুদ হাসান রিপন এবং বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সুশীল চন্দ্র সরকার।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ফারজানা রাব্বী বুবলী ফুলছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। তার স্বামী বিচারপতি খুরশীদ আলম সরকার। ফজলে রাব্বী মিয়ার মেয়ে হিসেবে বাবার উত্তরাধিকার সূত্রে তিনি জনপ্রিয়তা কিছুটা হলেও এগিয়ে রয়েছেন বলে দলটির অনেক নেতাকর্মীদের ধারণা। উপনির্বাচনে দল থেকে মনোনয়ন পেলে তার জয়লাভের সম্ভাবনা আছে বলে দলটির অনেক নেতাকর্মীর ধারণা।

মনোনয়নের দৌড়ে ফুলছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জি এম সেলিম পারভেজের নামও শোনা যাচ্ছে জোরালোভাবে। তিনি উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতিও ছিলেন। এছাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের দুইবারের সাধারণ সম্পাদক ও দ্বিতীয়বারের মতো উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন তিনি। পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যানও নির্বাচিত হন। এলাকায় বেশিরভাগ সময় কাটানোয় দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে তার ভালো সখ্যতা আছে। সেজন্য মনোনয়নের দৌড়ে তিনিও এগিয়ে আছেন।

মনোনয়ন পেতে আলোচনা চলছে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সভাপতি মাহমুদ হাসান রিপনকে নিয়েও। আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সহসম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করা রিপন দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় প্রচার প্রচারণা ও বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করছেন। ছাত্রলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতির পরিচয় তো আছেই। এসব বিবেচনায় নিয়ে দল তাকে মনোনয়ন দিতে পারে বলে দলটির অনেক নেতাকর্মীর ধারণা। নৌকার টিকিট পেলে রিপনেও জেতার সম্ভাবনা অনেক বলে দলটির অকেন নেতাকর্মীর ধারণা।

জেলা যুবলীগ ও ছাত্রলীগের সাবেক নেতা বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সুশীল চন্দ্র সরকারও মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসাবে দীর্ঘদিন হলো নির্বাচনী এলাকায় প্রচার প্রচারণা ও বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করছেন।

জানতে চাইলে মনোনয়ন প্রত্যাশী ফারজানা রাব্বী বুবলী বলেন, আমার বাবা দীর্ঘদিন এই এলাকা থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে উন্নয়ন করে আসছে। উপনির্বাচনে নির্বাচিত হলে বাবার স্মৃতিকে ধরে রাখতে এলাকার উন্নয়নের ধারা অব্যহত রাখবো। তিনি বলেন, স্থানীয় পর্যায় থেকে শুরু করে জাতীয় পর্যায়ে অবদান যে রেখেছে আমার বাবা সেটা অব্যাহত রাখার আশা ব্যক্ত করেন তিনি।

মাহমুদ হাসান রিপন বলেন, দলীয় মনোনয়ন পেয়ে নির্বাচিত হলে এই এলাকার অতীতের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখব। তৃলমূল সংগঠন থেকে উঠে এসে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছি। আমি দলীয় মনোনয়নের ব্যাপারে আশাবাদী।

উল্লেখ্য, জাতীয় সংসদের সংসদীয় গাইবান্ধা-৫ আসনের সাতবারের নির্বাচিত সংসদ সদস্য ও সংসদের ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়া গত ২২ জুলাই নিউইয়র্কের মাউন্ট সিনাই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। এরপর রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় নিজ গ্রামে পারিবারিক কবরস্থানে পিতা মাতা, স্ত্রী, সন্তান নাতির কবরের পাশে কবরস্থ করা হয় তাকে।

নিউজনাউ/এবি/২০২২
 

X